পাসপোর্ট ছাড়া পাইলটের কাতারযাত্রা তদন্তে এবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কমিটি

0
197

পাসপোর্ট ছাড়া পাইলট কীভাবে কাতার গেলেন তা তদন্তে কমিটি গঠন করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগ। শুক্রবার (৭ জুন) সুরক্ষা সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী স্বাক্ষরিত এক নোটিশে এ তথ্য জানানো হয়েছে। গঠিত কমিটিকে তদন্ত করে সাত দিনের মধ্যে সুরক্ষা বিভাগে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। কমিটিতে এক বা একাধিক সদস্য যুক্ত হতে পারবেন।

কমিটির সভাপতি সুরক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ( নিরাপত্তা ও বহিরাগমন) মোহাম্মদ আজহারুল হক, সদস্য সচিব যুগ্ম সচিব (বহিরাগমন-৪) হেলাল মাহমুদ শরীফ, সদস্য বহিরাগমন ও পাসপোর্ট অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক সেলিনা বানু ও শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশনের বিশেষ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহরিয়ার আলম।

কমিটির কার্যপরিধিতে বলা হয়েছে, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের পাইলট ফজল মাহমুদ কীভাবে পাসপোর্ট ছাড়া শাহজালাল বিমানবন্দর ত্যাগ করেছেন তা উদঘাটন করা। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কর্মচারীর দায়-দায়িত্ব নির্ধারণ করা। ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধ করা ও সুষ্ঠু ইমিগ্রেশন ব্যবস্থাপনার জন্য ভবিষ্যতে কী কী পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন, সে বিষয়ে সুপারিশ প্রদান। তদন্তে উদঘাটিত অন্যান্য বিষয় তুলে ধরা।

এ ঘটনা তদন্তে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগও চার সদস্যের পৃথক কমিটি করেছে। শুক্রবার (৭ জুন) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব গাজী তারিক সালমন স্বাক্ষরিত এক আদেশে বলা হয়, পাসপোর্ট ছাড়া পাইলট ফজল মাহমুদের দোহা ভ্রমণের কারণ অনুসন্ধান করবে কমিটি। একইসঙ্গে কমিটি শাহজালাল বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষের দায়িত্বে অবহেলার কারণ নিরূপণ করবে। চিহ্নিত করবে বহিরাগমন ও পাসপোর্ট অধিদফতরের ত্রুটি। কমিটি জরুরি ভিত্তিতে তদন্ত করে তিন কর্মদিবসের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেবে। কমিটির আহ্বায়ক মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নাসিমা বেগম, সদস্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা বিভাগের যুগ্ম সচিব (রাজনৈতিক-৪) মো. হেলাল মাহমুদ শরীফ, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মুস্তাকিম বিল্লাহ ফারুকী। কমিটির সদস্য সচিব স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের যুগ্ম সচিব (রাজনৈতিক-১) মো. জাহাঙ্গীর আলম।

একটি উত্তর ত্যাগ

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন !
দয়া করে এখানে আপনার নামটি লিখুন